টাঙ্গাইলে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে শিমুল আলুর আবাদ

গোপালপুর (টাঙ্গাইল) থেকে রাসেল

টাঙ্গাইলের পাহাড়িয়া এলাকায় ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে শিমুল আলুর আবাদ। অনেকে এটাকে কাসাবা আলুও বলেন। বাণিজ্যিকভাবে এ আলুর আবাদ শুরু হওয়ায় বহু কৃষকের কাছে এটি আশীর্বাদ হয়ে দেখা দিয়েছে। নাতিশীতোষ্ণ অঞ্চলের ফসল এটি। আফ্রিকার মন্দাপীড়িত অঞ্চলে এ ফসলের আবাদ বেশি হয়। এ আলুর মধ্যে পুষ্টিকর উপাদানের পরিমাণ বেশি। যা ক্ষুধা নিবারণের জন্য অত্যন্ত কার্যকর।

কাসাবা আলু দুই প্রকারের। একটি তেতু কাসাবা, অপরটি মিষ্টি কাসাবা। তবে টাঙ্গাইলের পাহাড়িয়া এলাকায় মিষ্টি কাসাবা আলুই বেশি জনপ্রিয়। মধুপুর গড় অঞ্চলের আদিবাসীরা দীর্ঘদিন যাবৎ কাসাবা বা শিমুল আলুর আবাদ করে আসছে। প্রথমে বাড়ির আঙিনায় পরে পরিত্যক্ত জমিতে কাসাবা আলু আবাদ করতেন। পরে এ আলুর আবাদ ছড়িয়ে পড়ে ঘাটাইল, মধুপুর, সখীপুর, ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা ও ফুলবাড়িয়া উপজেলায়।

টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার মহিষমারা গ্রামের আফাজ উদ্দিন দীর্ঘদিন যাবৎ শিমুল আলুর আবাদ করেন। দুই দশক আগে ’৯২ সালে স্থানীয় দিনেশ সাংমার বাড়ি থেকে প্রথম ওই এলাকায় ব্যাপকভাবে শিমুল আলু আবাদের পরিকল্পনা শুরু করেন। প্রথম বছর শিমুল আলু সিদ্ধ করে স্থানীয় বাজারে বিক্রি করতেন। পরে আফাজের সঙ্গে পরিচয় হয় ঢাকার কয়েকজন ব্যবসায়ীর সঙ্গে। তাদের সহযোগিতায় তিনি ঢাকার বাজারে শিমুল আলু বিক্রি করেন। পাল্টে যেতে থাকে তার অর্থনৈতিক অবস্থা।

আফাজ উদ্দিন বলেন, অল্প খরচে বেশি লাভ শিমুল আলুর থেকে অন্য ফসলে নেই। আমি শুনেছি অন্যান্য আলুর তুলনায় এ আলুর রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বেশি। প্রতি একর জমিতে ১৯০ থেকে ২০০ মণ আলু হয়। প্রতি মণ আলুর খুচরা বাজার মূল্য ২৫০ থেকে ৩০০ টাকা।

ঘাটাইল উপজেলার সাগরদিঘী, সিদ্ধিখালী, লক্ষিন্দর, জোরদিঘী, মহিষমারাসহ বিভিন্ন এলাকার চাষীরা সাথী ফসল হিসেবেও শিমুল আলুর আবাদ করছেন। এ গাছ দেখতে অনেকটা শিমুল গাছের মতো। উচ্চতা ৮ থেকে ১২ ফুট। আলু জন্মায় মাটির নিচে। এ গাছের শেকড়ই মূলত আলু হিসেবে গণ্য হয়। শিমুল আলু চাষে রাসায়নিক সারের প্রয়োজন হয় না। শিমুল আলু গ্লুকোজ তৈরিতে ব্যবহার করা হয়।

টাঙ্গাইলের কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আজিজ উল্লাহ বলেন, টাঙ্গাইলের পাহাড়িয়া এলাকায় প্রায় ৫০০ হেক্টর জমিতে কাসাবা বা শিমুল আলুর আবাদ করা হয়েছে। দিন দিন এর আবাদ বাড়ছে। ফলনও ভালো।

 

লেখক  :

গোপালপুর-টাঙ্গাইল।

FacebookTwitterGoogle GmailEmailYahoo MailYahoo MessengerShare