প্রশ্নোত্তরে কৃষি

কৃষিবিদ ড. এম. এ. মান্নান

প্রশ্ন ঃ আমি আপনাদের কাছ থেকে জানতে চাই যে হলুদ চষের ভাল উপায় কি? হলুদ কোন মাস থেকে রোপণ করতে হয় এবং কতদিন আগ থেকে হলুদ রোপণের স্থানে সার প্রয়োগ করতে হয়। প্রতি শতাংশে কত কেজি হলুদ লাগে এবং শতাংশে কি পরিমাণ সার ব্যবহার করতে হয়্ হলুদ রোপণের দিন থেকে কতদিন পরপর বীজ তলায় কিকি ঔষধ দিতে হবে। হলুদ লাগানোর কত দিন পর হলুদ ঘরে তোলা যাবে।

মোঃ আমান উল্ল্যাহ সিরাজী

গ্রামঃ মুগুজী দক্ষিণ পাড়া

উপজেলাঃ বরুড়া, জেলাঃ কুমিল্লা

উত্তর ঃ আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ । মার্চ মাসেই হলুদ চাষের জমি তৈরী শুরু করতে হয় এবং শতক প্রতি ৬০ কেজি গোবর মাটির সাথে মিশিয়ে দিতে হয়।

  •  এপ্রিল মে মাসে হলুদের বীজ বা কন্দ বপন করতে হয়ে।
  •  প্রতি শতকে ১০ কেজি হলুদের কন্দ বপন করতে হয়।
  •  জমি তৈরীর সময় শতক প্রতি ৪০০ গ্রাম ইউরিয়া ৮০০ গ্রাম টিএসপি ও ৭৫০গ্রাম পাস সার বেসাল ডোজ হিসাবে ব্যবহার করতে হয়। লাগানোর ৬০ ও ৮০ দিন পর ২৫৫গ্রাম করে ইউরিয়া উপরি প্রয়োগ হিসাবে প্রয়োগ করতে হবে।
  •  হলুদে পোকার  আক্রমণ খুবই কম হয়।
  •  হলুদে অনেক সময় এনথ্রাকনোজ রোগের প্রাদুর্ভাব হয়।
  • পাতায় প্রথমে দাগ দেখা যায় ক্রমশ অনেকগুলো দাগ একত্রে হয়ে পাতা পুড়ে যাওয়া মনে হয়। প্রতি লিটার পানিতে আড়াই গ্রাম ডাইথেন এম গুলে ¯েপ্র করে দিতে হয়।
  •  কন্দ রোপণ থেকে শুরু করে ১০মাস পর হলুদ উঠানো যায় এবং শতক প্রতি ১০০ কেজি উৎপাদন হয়।

প্রশ্ন ঃ  কৃষিবার্তার প্রিয় মান্নান স্যার এবং কৃষিবার্তার সবাইকে সালাম। আমি জানতে পেরেছি বাংলাদেশের বিজ্ঞানীরা একটি সুবাসিত ৫০ ধান আবিষ্কার করেছে। ধানটি সম্পর্কে জানতে চাই।

মোঃ সোহেল

উপজেলা ঃ সদর

জেলা ঃ গাইবান্ধা।

উত্তর ঃ হাবিব ভাই আপনার প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। ব্রি ধান ৫০ বাংলাদেশের ধান বিজ্ঞানীদের একটা বড় সাফল্য। এটা একটি সুগন্ধি চাল। হেক্টর প্রতি ফলন ৬ টন এই ধানটি অনেকটা বাসমতির মত।

  •             ধানের বীজ বপন করতে হয় কার্তিক মাসের ১০-২০ তারিখের মধ্যে ২৫ অক্টোবর থেকে ৫ নভেম্বরের মধ্যে।
  •             ধানের চারা রোপণ করতে হয় ১৫ পৌষ থেকে ১৫ মাঘের মধ্যে অন্যান্য পুরো মাস মিলে রোপণ করা হয়।
  •             ফসল কাটা যায় ২৫ চৈত্র থেকে ৫ বৈশাখ ১-১৫ এপ্রিল।
  •             জীবন কাল ১৫০ দিন।
  •            ধান বা চালের বাজার মূল্য বেশী। আশকরি এ ধান আবাদ করে আপনি লাভবান হবেন।

প্রশ্ন ঃ আমি আপনাদের কৃষিবার্তার একজন নিয়মিত পাঠক। আমার জমিতে গাজর চাষ করতে চাই। প্রয়োজনীয় পরামর্শ দরকার। গাজর চাষে কি করতে হবে একটু বলবেন কি?

মোঃ খালেদ উদ্দিন

উপজেলা ঃ হাকিমপুর

জেলা ঃ দিনাজপুর।

উত্তর ঃ শাহাব উদ্দিন ভাই আপনি গাজর চাষ করতে চাচ্ছেন বলে ধন্যবাদ।

  •   গাজরে প্রচুর ভিটামিন “এ” থাকে যা খেলে দৃষ্টি শক্তি ভাল থাকে।
  •    সঠান্ডা আবহাওয়ায় এবং বেলে দো-আঁশ মাটি গাজর চাষের জন্য বেশী উপযোগী।
  •    বাজারে রয়েল ক্রস, কেরেল ক্রস ইত্যাদি জাতের বীজ পাবেন। এ সময়েই জমিতে বীজ বপন করতে হবে।
  •     হেক্টর প্রতি ৩-৪ কেজি বীজ লাগে। সারি থেকে সারি ২০-২৫ সেমি. এবং গাছ থেকে গাছ ১০ সেমি. দুরত্বে বীজ বপন করতে হয়।
  •     হেক্টর প্রতি ৫-৭ টন গোবর, ৭৫ কেজি উরিয়া, ১২৫ জেজিই, টিএসপি এবং ১০০ কেজি পাশ প্রয়োগ করতে হবে।
  •      চারা গজানোর ১০-১২ দিন পর ৩৫ কেজি ইউরিয়া প্রয়োগ করতে হবে।
  •       চারা গজানোর ৩৫-৫০ দিন পর ৩৫ কেজি ইউরিয়া এবং ১০০ কেজি পাশ প্রয়োগ করতে হবে।

আশা করছি চারা গজানোর ৭০-৮০ দিন পর হেক্টর প্রতি ২০ -২৫ টন গাজর পাবেন।

প্রশ্ন ঃ আমার বাড়ীতে ২টি কাঠাল গাছ আছে কাঠালের মুচি আসে এবং পচে যায়। কি করলে পচার বা জাত থেকে মুচি বাঁচাতে পারব।

মোঃ রকিব মিয়া

উপজেলা ঃ মুক্তাগাছা

জেরা ঃ ময়মনসিংহ।

উত্তর ঃ রকিব ভাই এটি হচ্ছে কাঁঠালের মুচি পচা রোগ। এটি একটি ছত্রাক জনিত রোগ।

স এ থেকে মুক্তি পেতে হলে মুচি আসার পর ২ গ্রাম রিডেমিল গোল্ড প্রতি লিটার পানিতে মিশিয়ে ১২-১৫ দিন পরপর ২-৩ বার ¯েপ্র করে দিতে হবে। আশা করি আপনার মুচি পচবেনা এবং ভাল কাঁঠাল খেতে পারবেন।

আপনি/আপনারা এমন যে কোন ধরনের প্রশ্নের জন্য আমাদেরকে লিখবেন বা ফোন করবেন ০১৯১৫৪৭৩৩০৮ নাম্বারে। উত্তর পেয়ে যাবেন পরবর্তী সংখ্যায় ইনশাল্লাহ।

FacebookTwitterGoogle GmailEmailYahoo MailYahoo MessengerShare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *