বিদেশে খ্যাতি ছড়াচ্ছে নরসিংদীর লেবু

কৃষিবিদ জাহেদুল আলম রুবেল

কাপড় ও সবজির কারণে নরসিংদীর খ্যাতি দেশজুড়ে। কিন্তু দেশের সীমানা ছাড়িয়ে বিদেশে নরসিংদীকে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছে বাণিজ্যিকভাবে চাষকৃত ‘কলম্বো’ জাতীয় সুগন্ধী লেবু। নরসিংদী থেকে এখন এই লেবু রপ্তানি হচ্ছে ইউরোপের ও মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে।

বাংলাদেশ ভেজিটেবল এন্ড ফ্রুটস এক্সপোর্ট এ্যাসিশিয়েশন ও জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের হিসেব অনুযায়ী, সরকারি হিসেবে গত বছরের জুন থেকে চলতি বছরের জুন পর্যন্তদুই হাজার মেট্রিক টন কলম্বো জাতের লেবু রপ্তানি করা হয়েছে। এরমধ্যে ইতালি, ফ্রান্স, সুইজারল্যান্ড, জামার্নি, নরওয়ে, ফিনল্যান্ডসহ ইউরোপীয় ইউনিয়নের ১০ টি দেশে ১৩শ মেট্রিক টন এবং সৌদি আরব, মালয়েশিয়াসহ মধ্য প্রাচ্যে গেছে ৭শ মেট্রিক টন। বেসরকারি হিসেবে এই পরিমাণ আরো বেশি। সর্বশেষ গত মার্চ মাস থেকে জুন মাস পর্যন্ত ৩৫০ মেট্রিক টন লেবু রপ্তানি হয়েছে। এই জাতের একেক কেজি লেবু গড়ে দুই পাউন্ডে (দুইশ টাকারও বেশি) দামে বিক্রি হয়।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. আলতাফ হোসেন জানালেন, নরসিংদীতে উৎপাদিত কলম্বো জাতের এই লেবুর ব্যাপক খ্যাতি ও কদর ইউরোপ ও মধ্য প্রাচ্যে। লেবুটি বাণিজ্যিকভাবে শুধু নরসিংদীতে উৎপাদিত হয়। আবহাওয়া ও পরিবেশগত কারণে সারা বছরই নরসিংদীতে প্রচুর লেবুর চাষ হয়, কিন্তু কলম্বো জাতের লেবুটি ভিন্নরকম। প্রতিটি লেবু আকারে বড়, রসালো, সুগন্ধিযুক্ত। এছাড়া এই লেবুর বাকল পুরো ও ঘন সবুজ।

নরসিংদী কৃষি অধিদপ্তরের কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, জেলার ছয়টি  উপজেলার মধ্যে শিবপুর, রায়পুরা, মনোহরদী ও বেলাবতে বাণিজ্যিকভাবে কলম্বো লেবু চাষ করা হয়। এসব উপজেলার ৩০০ হেক্টর জমিতে ছোট-বড় প্রায় ১৮০০ টি লেবুর বাগান রয়েছে। প্রায় পনেরশ চাষী এর সঙ্গে জড়িত।কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সহযোগীতায় স্থানীয়ভাবে চাষীরা লেবু উৎপাদন ও বিপনন ব্যবস্থা নিয়ে (সিআইজি) নামের একটি সংগঠন গড়ে তোলেছেন। তাদের কাছ থেকে রপ্তানি কারকরা সরাসরি দেশের বাইরে লেবু রপ্তানি করে থাকেন।

চাষীদের কথা

শিবপুরের মাছিমপুর ইউনিয়নের দত্তেরগাঁও ভিটিপাড়া এলাকার লেবুচাষী ও সিআইজির সভাপতি খন্দকার মাহবুবুর রহমান। কালের কণ্ঠকে তিনি বলেন, ‘২০০৩ সালের দিকে যখন লেখাপড়া শেষ করে চাকরী পাচ্ছিলাম না। এলাকায় এক আত্মীয়ের পরামর্শে এক বিঘা জমিতে ২০টাকা দরে ১০০টি লেবু গাছ কিনে লাগাই। পরে ছয় মাস যেতে না যেতেই এক ঈদে ঢাকা থেকে এক পাইকার এসে আমার বাগান থেকে প্রায় ৩৩০০ পৌন (২০ হালিতে ১ পৌন) লেবু কিনে নেয়। ঐ সময়ই আমি ১৫০ টাকা হালি ধরে প্রায় প্রায় দেড় লক্ষাধিক টাকার লেবু বিক্রি করি। এরপর আমাকে দেখে অনেকেই বাগান করার প্রতি ঝুঁকে পড়ে। বর্তমানে আমার সাড়ে পাঁচ বিঘা জমির উপর চারটি বাগান রয়েছে। ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা খরচ করে এখন আমার ছয়-সাত লাখ টাকা লাভ হচ্ছে’। সর্বশেষ পাঁচ মাসে আমার বাগানের প্রায় ৫০০ পৌন লেবু রপ্তানি হয়েছে। যা থেকে আমার প্রায় ৫ লক্ষাধিক টাকা আয় হয়েছে। যা এখনো অব্যাহত আছে।’

রায়পুরা উপজেলার রাধানগর ইউনিয়নের লক্ষ্মীপুর গ্রামের লেবু চাষী বাবুল চৌধুরী বলেন, আমি গত পাঁচ বছর আগে স্থানীয় কৃষি অফিসের সহায়তায় প্রথমে একবিঘা জমির উপর লেবু বাগান করি। সবজি চাষের তুলনায় পরিশ্রম কম দিয়ে লেবু চাষ অনেক লাভ। পরবর্তীতে লেবু বিক্রির টাকা দিয়ে প্রায় ১৩ বিঘা জমি কিনে লেবু চাষ করছি। বাগানে বছরে প্রায় ৫ লাখ টাকা খরচ হয়। লাভ হয় ১৫ লাখ টাকা।

লেবুর বৈজ্ঞানিক বিশ্লেষণ

নরসিংদী সরকারি কলেজের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান ও অধ্যাপক মো. আবদুল কাফির সঙ্গে কথা বলে জানা গেলো, লেবুর বৈজ্ঞানিক নাম হচ্ছে Citrus limon (L), এটি কয়েকটি জাতের হয়ে থাকে। এরমধ্যে জারা লেবু, কারনা লেবু, বড়লেবু, এলাচী লেবু, আসাম লেবু, কলম্বো লেবু, কাটা লেবু ইত্যাদি। তবে এগুলোর আলাদা কোন বৈজ্ঞানিক নাম নেই। লেবুর রসে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ রয়েছে। এছাড়াও অল্প পরিমাণে কলেষ্টোরেল সোডিয়াম, পটাশিয়াম, কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন, ক্যালসিয়াম, আয়রন ও ম্যাগনেসিয়াম রয়েছে। অপরদিকে এ লেবুর সুগন্ধিযুক্ত ছাল প্রক্রিয়া জাত করে লেবুর গন্ধযুক্ত তরল উদ্বায়ী তেল তৈরি করা যায়। এছাড়া এতে সামান্য পরিমাণ হ্যাসপারেডিন যবংঢ়বৎরফরহ, একটি তিক্ত উপাদান, ট্যানিনের মতো একটি উপাদান এবং ক্যালসিয়াম অক্সালেট আছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ইতালি, স্পেন, সিসিলি, পর্তুগাল, অষ্ট্রেলিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রে বাণিজ্যিকভাবে প্রচুর পরিমাণে এই লেমন তেল উৎপন্ন করা হয়। এছাড়াও লেমন তেল ঔষধে সুগন্ধি উপাদান হিসেবে এবং সুগন্ধি প্রসাধনী তৈরিতে ব্যবহার করা হয়।

এছাড়া কলম্বো জাতের এই সুগন্ধি লেবু শরীর বৃদ্ধিতে ও গঠনে বেশ কার্যকরী। এছাড়া খনিজ লবনের চাহিদা মিটিয়ে ঠান্ডা,সর্দিতে বেশ উপকারী। পাশাপাশি নরসিংদীর এই লেবুর বাকল হজম শক্তিতে বেশ কাজ করে। অপরদিকে এক কাপ লেবুর রস ও এক চামচ মধু হালকা গরম পানিতে করে খেলে শরীরের ক্ষতিকারক কলেষ্টোরেল কমে। পাশাপাশি এটি হৃদরোগে বেশ কাজে দেয়।

বিদেশে খ্যাতি ছড়াচ্ছে নরসিংদীর লেবু

ফাহাদ ইন্টারন্যাশনাল, রহিম ট্রেড, মেসার্স আজিজ এন্ড সন্স, ফিরোজ ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল, মেসার্স মরিসন এন্টারপ্রাইজ, ইশতিয়ার ফেয়ার ইন্টারন্যাশনাল, ফারদিন এন্টার প্রাইজ।

বাংলাদেশ ভেজিটেবল এন্ড ফ্রুটস এক্সপোর্ট এ্যাসিশিয়েশনের সদস্য ও রপ্তানী কারক প্রতিষ্ঠান ফারদিন এন্টার প্রাইজের পরিচালক মো. আরিফ উল্লাহবলেন, ‘নরসিংদীর বিভিন্ন এলাকা থেকে কলম্বো জাতের লেবু এখন ইউরোপ ও মধ্যপ্রাচ্যে যাচ্ছে। একেক কেজি লেবু প্রায় দুই পাউন্ডে কখনো তারও বেশি টাকায় বিক্রি হয়। আমার মনে হয় এই লেবু রপ্তানি করে ভবিষ্যতে আমরা আরো বেশি বৈদেশিক মুদ্রা আনতে পারবো’।

————————————–

লেখকঃ

মফস্বল সম্পাদক, কালের কণ্ঠ, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, ঢাকা।

FacebookTwitterGoogle GmailEmailYahoo MailYahoo MessengerShare