মাছে ফরমালিন ব্যবহারের ভয়াবহতা, ক্ষতিকর প্রভাব ও প্রতিরোধ ব্যবস্থা

মোঃ আবুল কালাম আজাদ

কার্যকরী জীবাণুনাশক হিসেবে এবং বিভিন্ন শিল্পে ফরমালিন একটি বহুল ব্যবহৃত রাসায়নিক পদার্থ। সহজ কথায় ফরমালডিহাইডের ৪০% জলীয় দ্রবণের বাণিজ্যিক নামই হচ্ছে ফরমালিন। স্বচ্ছ, বর্ণহীন, বিশেষ ঝাঁঝালো গন্ধযুক্ত এই রাসায়নিক পদার্থ মাছ ও অন্যান্য খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণে ব্যবহৃত হওয়ায় বর্তমানে তা জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকি হয়ে দেখা দিয়েছে। মাছসহ সকল খাদ্যদ্রব্যে এর অপব্যবহারের ক্ষতিকর প্রভাব এবং তা থেকে উত্তরণের নানা উপায় নিয়ে এ লেখায় আলোকপাত করা হয়েছে।

ফরমালিনের ধর্ম তথা বৈশিষ্ট্য

  •              ফরমালিন হল ফরমালডিহাইড বা মিথানল (Methanal) গ্যাসের জলীয় দ্রবণ (H-CHO) যাতে সাধারণত ৩৭-৪০ শতাংশ ফরমালডিহাইড থাকে।
  •              সাধারণ তাপমাত্রায় ফরমালডিহাইড একটি গন্ধযুক্ত বর্ণহীন গ্যাস।
  •              এটি একটি দাহ্য পদার্থ।
  •              ফরমালডিহাইড (H-CHO) এক ধরনের কার্বনিল যৌগ। কার্বনিল যৌগসমূহকে প্রধানত দুই শ্রেণীতে ভাগ করা যায়, যথা- অ্যালডিহাইড ও কিটোন। দ্বিযোজী কার্বনিল ((>C=0) মূলকের সাথে ২টি হাইড্রোজেন পরমাণু যুক্ত হয়ে যে যৌগ উৎপন্ন হয় তাই ফরমালডিহাইড।
  •              প্রায় ৫০০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রায় উত্তপ্ত সিলভার অথবা কপার প্রভাবকের উপর দিয়ে মিথানলের বাষ্প ও বায়ুর মিশ্রণকে চালনা করলে মিথানল আংশিক জারিত হয়ে মিথান্যাল ও পানি উৎপন্ন হয়। উৎপন্ন মিথান্যাল গ্যাসকে পানিতে চালনা করলে উৎপন্ন হয় ৩০-৪০% জলীয় দ্রবণ বা ফরমালিন।
  •              শিল্প ও বাণিজ্যিক নানাবিধ কাজে বহুল ব্যবহারের জন্য এটি Industrial Chemical  হিসেবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

ফর্মালিনের ব্যবহার

ক্সআমাদের দেশে মূলত গবেষণাগারে প্রিজারভেটিভ (Preservative) হিসেবে ফরমালিন ব্যবহৃত হয়। প্রাণী যাদুঘরে যে কোন জৈবিক নমুনা সংরক্ষণে ও নমুনা প্রদর্শনের লক্ষ্যে সংরক্ষণের জন্য নিয়ন্ত্রিত মাত্রায় (সাধারণত ১০%) ফরমালিন ব্যবহার করা হয়।

             যুক্তরাষ্ট্রের Champion Enczclopedia এর তথ্যানুসারে, কেবল যুক্তরাষ্ট্রেই বছরে ৮.২ বিলিয়ন পাউন্ডের অধিক ফরমালিন তৈরি হয় এবং এবং বিশ্বব্যাপী এর বার্ষিক উৎপাদন ১৬ বিলিয়ন পাউন্ডের বেশি।

ক্সবিশ্বব্যাপী মোট উৎপাদিত ফরমালডিহাইডের ৬০% কাঠ ও কনস্ট্রাকশন কারখানায় যেমন- ইউরিয়া-ফরমালডিহাইড, ফেনল-ফরমালডিহাইড, মেলামাইন-ফরমালডিহাইড, গ্লু, রেজিন এবং কঠিন কারক বা শক্ত কারক (Stiffness) হিসাবে ব্যবহৃত হয়।

ক্সত্রিশ শতাংশ ফরমালিন Chemical Intermediate, যেমন: ফেন্টাইরাইথ্রিটল, হেক্সামিথাইল ইনটিট্রামাইন, বিউটানিডিয়ল ইত্যাদি তৈরিতে ব্যবহৃত হয় যার দ্বারা অন্যান্য বাণিজ্যিক রাসায়নিক পদার্থ তৈরি হয়।

ক্সসাত শতাংশ ফরমালডিহাইড থার্মোপ্লাস্টিক রেজিন উৎপাদনে ব্যবহৃত হয় এবং ২ শতাংশ পোশাক শিল্পে বা আবরণ (Apparel) শিল্পে যেমন: পোশাক বা সার্ট সাদা কারক, ফিনিসার, শক্ত কারক, চামড়ার ভাজ বা রেখা দূর কারক এবং মচমচে ভাব (Crispness of Appearance) তৈরির জন্য ব্যবহৃত হয়।

ক্সমাত্র এক শতাংশ ফরমালডিহাইড প্রিজারভেটিভ এডিটিভ হিসাবে সাবান, লোশন, শ্যাম্পু তৈরির সময় ব্যবহৃত হয়।

ক্সবিশ্বব্যাপী মৃত দেহ সংরক্ষণের জন্য সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য উপকরণ হচ্ছে ফরমালিন। ধারণা করা হয় যে, ১৮৯৯ সাল হতে মৃত মানবদেহ সংরক্ষণের জন্য ফরমালিন ব্যবহৃত হচ্ছে। তবে মৃত দেহ সংরক্ষণে ফরমালিনের ব্যবহার ১ শতাংশেরও অনেক কম।

             এছাড়াও ফরমালডিহাইড গাম, প্রাকৃতিক রং, নেলপালিশ, পার্টিক্যাল বোর্ড, প্লাইউড, ফাইবার বোর্ড, কাগজের কোটিং, স্থায়ী প্রেস ফেব্রিক ইত্যাদি তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।

             ঔষধ, এন্টিসেপটিক, ডিটারজেন্ট ইত্যাদি তৈরিতে এটি ব্যবহৃত হয়।

             বিভিন্ন ব্রান্ডের বাণিজ্যিক ছত্রাক-নাশক (Fungicide), জীবাণুনাশক (Germicide) এবং ডিজইনফেকট্যান্ট (Disinfectant) হিসেবে এটি ব্যবহৃত হয়।

             মাছের প্রোটোজোয়া এবং ছত্রাকজনিত রোগের চিকিৎসায়ও ফরমালিন ব্যবহৃত হয়।

             চিংড়ী ও কার্প হ্যাচারিতে জীবাণুনাশক হিসেবে ফরমালিন নির্ধারিত মাত্রায় ব্যবহার হয়।

             যুক্তরাষ্ট্রের Food and Drug Administration ফর্মালিনের চার ধরণের প্রোডাক্টকে পরজীবীনাশক এবং ছত্রাক-নাশক হিসেবে মাছ ও চিংড়িতে বাহ্যিকভাবে ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে। যথা-

 

Paracide-F (Supplied bz argent Laboratories Redmond WA)

Parasite-S (Supplied bz Western Chemical Inc. Ferndale WA)

Formacide-B (Supplied bz B.L. Mitchell, Inc., Leland,MS)

Formalin-F (is supplied  bz Natchez Animal Supplz Companz Natchez, MS),

 

ফরমালিন বিভিন্ন শিল্প কারখানায় কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে, যথা-

  •              রসায়ন শিল্পে ফেনল-মিথানল বা ফেনল-ফরমালডিহাইড প্লাস্টিক বা ব্যাকেলাইট নামক প্লাস্টিক ও ইউরিয়া-ফরমালডিহাইড প্লাস্টিক বা ফরমিকা তৈরিতে ব্যবহৃত হয়
  •              আয়না প্রস্তুতিতে বিজারক হিসেবে, রঞ্জক দ্রব্যের শিল্পোৎপাদনে মিথানল ব্যবহৃত হয়
  •              বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল ও গবেষণাগারে পচনশীল নমুনা সংরক্ষণ ও মানুষের মরদেহ দীর্ঘদিন সংরক্ষণে ফরমালিন ব্যবহার করা হয়।
  •              অণুজীব পরীক্ষাগারে বাতাস জীবাণুমুক্ত করণ এবং পোকামাকড় নিয়ন্ত্রণে ফরমালিন ব্যবহার করা হয়।

মুরগীর বাচ্চা উৎপাদন খামারে ইনকিউবেটর ফিউমিগেশনের কাজে প্রতি ১০০ ঘনফুট (৯-১০ ঘন মি) আয়তন বিশিষ্ট ইনকিউবেটরের জন্য ৮০ সি.সি. (৪০%) ফরমালিন ব্যবহৃত হয়।

ফর্মালিনের অপব্যবহার:

ক্সফর্মালিনের সৃষ্টি তো মানুষের উপকারের জন্য যেমন-ঔষধ, এন্টিবায়োটিক, ডিটারজেন্ট তৈরি, গবেষণাগারে পচনশীল নমুনা সংরক্ষণ ইত্যাদি প্রয়োজনীয় কাজের জন্য, কোনভাবেই মাছ, ফল, দুধ ইত্যাদি খাদ্যের পচন রোধে ব্যবহারের জন্য নয়। দুঃখজনক হলেও সত্য যে বর্তমানে অনৈতিকভাবে ফরমালিন নামক রাসায়নিক যৌগটি মূলত মানুষ ও প্রাণীর খাদ্যদ্রব্য ও শস্যাদি দীর্ঘকাল সংরক্ষণে ব্যবহার করা হচ্ছ। ফলে এসব বিষাক্ত খাদ্যের মাধ্যমে এটি মানবদেহে ঢুকে নানাবিধ ভয়াবহ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করছে।

ফরমালিন অপব্যবহারের ক্ষেত্রসমূহ

অসাধু ব্যবসায়ীরা যে সমস্ত পচনশীল খাদ্যের বাহ্যিক চেহারাতে টাটকা ভাব ও দীর্ঘ দিন সংরক্ষণ করার জন্য ফরমালিন ব্যবহার করে মাছ তার মধ্যে অন্যতম। এছাড়া অপব্যবহারের অন্যান্য ক্ষেত্রগুলির মধ্যে আছে-

  •              শুটকি মাছ
  •              ফল-ফলাদি
  •              তরকারী
  •              কাঁচা গোশত
  •              দুধ ইত্যাদি
  •              মাছে ফরমালিন মিশানো হয় কোথায় এবং কিভাবে?
  •              বিভিন্ন অনুসন্ধানী প্রতিবেদন হতে জানা যায়, আমদানিকৃত রুই মাছে আমাদের দেশের অভ্যন্তরে ফরমালিন ব্যবহার করা হয়। আমদানিকালে মিয়ানমারে কোনরূপ ফরমালিন ব্যবহার করা হয় না। বিদেশী কোন রুই, কাতলা মাছে ফরমালিন পাওয়া যায়নি। চট্টগ্রাম এলাকা থেকে যে সকল কাচকিসহ ছোট মাছ অন্যত্র বিক্রয় করা হয় সে সব মাছেই মূলত ফরমালিন পাওয়া গেছে। এতে প্রতীয়মান হয়, দেশে বাজারজাত করার সময়ই বিভিন্ন মাছের ঘাটে, আড়তে, হিমাগারে, অবতরণ কেন্দ্রে ও বাজারে অসাধু ও লোভী ব্যবসায়ীরা মাছে ফরমালিন ব্যবহার করে থাকে।
  •              ক্সএমনকি বরফের মধ্যেও (তৈরি সময় পানিতে এবং তৈরির পরে সরাসরি) ফরমালিন মিশানো হয় বলে জানা গেছে।
  •              সাধারণভাবে মাছকে সতেজ রাখার জন্য ড্রাম কিংবা বালতিতে পানির সাথে ফরমালিন মিশ্রিত করে মাছকে অল্পক্ষণ চুবিয়ে রাখা হয়।

ক্সআবার অনেক সময় বিশেষত বৃহৎ আকারের মাছে ইনজেকশন সিরিঞ্জ দিয়ে পেটে অর্থাৎ নাড়িভুঁড়িতে ফরমালিন ঢুকানো হয়।

ব্যাপকভাবে ফর্মালিনের অপব্যবহারের কারণ:

ক্সবর্তমানে অনেকেই মানুষ ও প্রাণির খাদ্যদ্রব্য ও শস্যাদি দীর্ঘকাল সংরক্ষণে ফরমালিন নামক রাসায়নিক যৌগটি ব্যবহার করছেন।

ক্সজ্যৈষ্ঠের সস্তা আম রমজানে; পৌষ-মাঘ-ফাল্গুন মাসের ইলিশ মাছ পহেলা বৈশাখে উচ্চমূল্যে বিক্রি করতে এবং মাছ যাতে সহজে না পচে ও দীর্ঘসময় ধরে বিক্রয় করা যায় এজন্য ফরমালিন ব্যবহার করছেন।

  •             মাছ ও ফল ব্যবসায়ী ছাড়াও অন্যান্য ফাস্টফুডের মধ্যে বিভিন্ন প্রিজারভেটিভের নামে ফরমালিন জাতীয় যৌগের ব্যবহার পরিলক্ষিত হচ্ছে এবং এরকম অনেক আকর্ষণীয় খাবার শিশুরা খেয়ে থাকে।

(চলবে)

FacebookTwitterGoogle GmailEmailYahoo MailYahoo MessengerShare