সবজীর নানা গুন

উম্মে নুসাইবা
মিষ্টি যে কুমড়া
মিষ্টি কুমড়া উচ্চমাত্রার ভিটামিন-এ-সমৃদ্ধ৷ এতে রয়েছে প্রায় ২৬৫০ ইন্টারন্যাশনাল ইউনিট ভিটামিন-এ৷ ভিটামিন-এ চোখের ছানিসহ চোখের যাবতীয় অসুখগুলোর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে৷ চোখের ছানির প্রধান চিকিত্‍সা হলো ছানি অপারেশন করা৷ তবে বিজ্ঞানীরা গবেষণা করে দেখেছেন, যাঁরা নিয়মিত মিষ্টি কুমড়া খান, তাঁদের চোখে ছানি পড়ে তুলনামূলকভাবে কম৷ যাঁরা রিউমাটয়েড আথর্্রাইটিসের রোগী, তাঁদের জন্যও এই সবজি ভীষণ উপকারী৷ কিডনির ইনফেকশনজনিত সমস্যা, মূত্রথলির কষ্ট বা গঠনগত সমস্যাতে তৈরি কষ্ট দূর করে মিষ্টি কুমড়া৷ এ ছাড়া প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-সি রয়েছে৷ তাই ত্বকের কাটা, ছেঁড়া, ঘা, স্মল পক্স-এ যথেষ্ট জরুরি এই সবজি৷ তবে অ্যালার্জির সমস্যাতে এই সবজি খাওয়া অনুচিত৷ ত্বকের ফোসকাজনিত সমস্যা, দেহের কোথাও পুঁজ জমে গেলে সেই জীবাণুর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে এই সবজি৷ পর্যাপ্ত ভিটামিন-এ, সি-এর বসতি থাকার জন্যই শিশুদের নরম খিচুড়ির সঙ্গে মিষ্টি কুমড়া ভীষণ উপকারী৷ রান্নার সময়মিষ্টি কুমড়া থেকে যে তেল বের হয় বা মিষ্টি কুমড়া থেকে যে তেল তৈরি হয়, তা পুরুষদের প্রোস্টেটের কার্যক্ষমতা ঠিক রাখে৷ মিষ্টি কুমড়ার বীজেও রয়েছে প্রচুর পুষ্টি ও রোগ তাড়ানোর অপূর্ব ক্ষমতা৷ মেধা বাড়ানোর জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে মিষ্টি কুমড়া৷ তাই গর্ভবতী অবস্থায় মিষ্টি কুমড়া খেলে গর্ভস্থ শিশুর মেধা ও মায়ের দেহের জন্যও কল্যাণ হয়৷ তবে এতে প্রচুর পরিমাণে কার্বোহাইড্রেট বা শক্ররা থাকার জন্য ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, যাঁরা অতিরিক্ত মোটা, তাঁরা মিষ্টি কুমড়া যত কম খেতে পারে, ততই ভালো৷
300-final2
সাধের লাউ
আমাদের দেশে প্রায় সারা বছরই লাউ পাওয়া যায়৷ ধারণা করা হয় যে লাউ পৃথিবীতে আবিষ্কৃত প্রাচীনতম সবজি এবং আফ্রিকার এর জন্ম৷ বর্তমানে পৃৃথিবীর প্রায় সব দেশেই লাউ পাওয়া যায়৷ প্রায় ৯৬ শতাংশ ময়শ্চারসমৃদ্ধ এই সবজি দেহের পানির পরিমাণ বজায় রাখে৷ এই ঋতুতে ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়৷ ত্বকের আদর্্রতা কমে যায়৷ লাউ খেলে ত্বকের আদর্্রতা ফিরে আসে৷ লাউয়ে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পানি, ক্যালসিয়াম ও ফসফরাস৷ পানি বেশি থাকার জন্য লাউ খেলে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পায়, চুলের গোড়া শক্ত হয়, প্রোস্রাবের সংক্রমণজনিত সমস্যা দূর হয়৷ ডায়রিয়া, ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য লাউ যথেষ্ট উপকারী সবজি৷ লাউ খেলে ডায়রিয়াজনিত পানিশূন্যতা দূর হয়, ডায়াবেটিকসহ সব রোগীর রক্ত পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে৷ এই সবজির ক্যালসিয়াম, ফসফরাস দেহের ঘামজনিত লবণের ঘাটতি দূর করে, দাঁত ও হাড়কে করে মজবুত৷ কিডনির কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে৷ এই সবজিতে আমিষ, চর্বির পরিমাণ খুবই নগণ্য৷ তাই উচ্চ রক্তচাপবিশিষ্ট রোগীদের জন্য এটি দুশ্চিন্তামুক্ত সবজি৷ এতে নেই কোনো কোলেস্টেরল৷ ক্যালরি ও আয়রন থাকার জন্য লাউ নিয়মিত খেলে মাতৃদুগ্ধ বৃদ্ধি পায়৷ সামান্য পরিমাণ ‘ভিটামিন বি’ কমপ্লেক্সের উপস্থিতি এই সবজিতে৷ খাবার হজমে সাহায্য করে, পরিপূর্ণ ঘুমের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে৷ লাউয়ে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর হয়৷ এসিডিটি দূর করতেও জুড়ি নেই৷ এই সবজি দেহের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে৷ লাউয়ের খোসাতেও রয়েছে পুষ্টি৷ লাউয়ের খোসার ভাজি খাওয়া যায়৷ বহুবিধ গুণের জন্য লাউ হোক পরিবারের সঙ্গী৷

FacebookTwitterGoogle GmailEmailYahoo MailYahoo MessengerShare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *