হাঁস-মুরগীর বিভিন্ন ধরনের টিকা বহন, ব্যবহার ও সংরক্ষণের নিয়মাবলী

টিকা ( ঠধপপরহব ) কি?

* টিকা রোগ প্রতিরোধের একটি উপায়৷

* টিকার মাধ্যমে দেহে রোগ প্রতিষেধক বীজ প্রয়োগ করা হয়৷

* এই বীজ সুনির্দিষ্ট রোগের নিষ্ক্রিয় জীবাণু , যা দেহে প্রবেশ করে বিশেষ উপায়ে সেই রোগের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলে৷
টিকা বহন, ব্যবহার ও সংরক্ষণের নিয়মাবলী

* প্রতিষেধক টিকা সবসময়ই সুস্থ পাখিকে প্রয়োগ করতে হয়৷

* কৃমিতে আক্রান্ত পাখিকে টিকা প্রয়োগ করা উচিত নয়৷ তাতে কাংখিত মাত্রায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সৃষ্টি হয় না৷

* টিকা বীজ অথবা প্রতিষ্ঠান কতর্ৃক প্রস্তুতকৃত তরল টিকা কোন অবস্থাতেই সূর্য্যের আলোতে আনা উচিত নয়৷

* টিকা বীজ ঠান্ডা অবস্থায় সংরক্ষণ করতে হবে৷

* টিকা ব্যবহারের তারিখ ও সংরক্ষণের মেয়াদ গত হয়ে গেলে এবং টিকার সাধারণ রং পরিবর্তিত হয়ে গেলে কোনক্রমেই সে টিকা ব্যবহার করা চলবেনা৷

* টিকা গুলানোর জন্য পরিস্রুত পানি ( উরংঃরষষবফ ডধঃবত্‍ ) ব্যবহার করতে হবে এবং তা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ব্যবহার করে শেষ করতে হবে৷

* নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শেষ না হলে তা সংরক্ষণ না করে মাটির নীচে পুঁতে ফেলতে হবে৷

* না থাকলে কলের পানি ২০ মিনিট গরম করার পর ঠান্ডা করে ব্যবহার করতে হবে৷

* ব্যবহারের সময় মিশ্রণ ও প্রয়োগের ক্ষেত্রে পাত্র, সিরিঞ্জ, নিডেল, ডাইলূশনের জন্য ব্যবহৃত তরল পদার্থ, টিকা ব্যবহারকারীর হাত ইত্যাদি পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন ও জীবাণুমুক্ত হওয়া প্রয়োজন৷

* জীবাণুমুক্ত করণের জন্য রাসায়নিক পদার্থ ব্যবহার করা উচিত নয়৷

* তরল টিকা ব্যবহারের পর অবশিষ্ট থাকলে ফ্রিজে রেখে তা পরে ব্যবহার করা যায়৷

* টিকা পরিবহনের ক্ষেত্রে ঈড়ষ ঈযধরহ বা ঠান্ডা অবস্থায় পরিবহন নিশ্চিত করা প্রয়োজন৷

* তাপ প্রতিরোধক কুল-ভ্যান/কন্টেইনার/ফ্লাস্কের মধ্যে বরফ দিয়ে টিকা পরিবহন করতে হয়৷

* বরফ গলে গেলে পুনরায় বরফ দিতে হয়৷

* ব্যবহারের সময় টিকা মিশ্রণের পাত্র ছায়াযুক্ত স্থানে বরফ দেয়া বড় পাত্রের মধ্যে রাখা উচিত৷

Table-3

 

 

* লক্ষ্য রাখতে হবে যেন বয়স্ক পাখীর টিকা ভুলবশত: বাড়ন্ত বাচ্চাকে না দেয়া হয়৷ এতে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে৷

* টিকার ভায়াল/ এম্পুল কখনোও হাতে বা পকেটে করে নেয়া ঠিক নয়৷ কারণ দেহের তাপে টিকার কার্যকারিতা নষ্ট হতে পারে৷

* গ্রামাঞ্চলে টিকা প্রদানের পূর্বে সমস্ত মোরগ-মুরগীকে একত্রিত করার পর টিকা গুলানো এবং ব্যবহার করা উচিত৷ কারণ মুরগী আনতে আনতে বিলম্বের কারণে টিকার গুনাগুণ নষ্ট হয়ে যেতে পারে৷

* গুলানো টিকা নিয়ে বাড়ী-বাড়ী বা গ্রাম থেকে অন্য গ্রামে ঘুরাফেরা করা ঠিক নয়৷

* টিকা প্রয়োগের জন্য ব্যবহৃত সিরিঞ্জ এবং সূচ কোনো প্রকার জীবাণুনাশক পদার্থ দ্বারা পরিস্কার করা উচিত নয়৷ কারণ সিরিঞ্জ এবং সূচ পরিস্কার করার পর যে জীবাণুনাশক পদার্থ লেগে থাকবে তা টিকার ব্যাকটেরিয়া বা ভাইরাসকে মেরে ফেলে টিকার কার্যকারিতা নষ্ট করে দিতে পারে৷
টিকা বীজ সংরক্ষণ পদ্ধতি

 

লেখকঃ
চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়, খুলশী, চট্টগ্রাম৷
মোবাইল-০১৮১১৯৮৬৬০৫
ইমেইল-
mdmohibullah@rocketmail.com

FacebookTwitterGoogle GmailEmailYahoo MailYahoo MessengerShare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *